প্রিয় পাঠক

# পরবর্তী JAN-FEB 2023 সংখ্যা প্রকাশিত হবে জানুয়ারির ১৫-২০ তারিখের মধ্যে # আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ # ঈশানকোণ নিয়মিত পড়ার জন্য আপনার প্রতি রইল আমাদের একান্ত অনুরোধ # ফেসবুকে আমাদের পেজ লাইক করুন, আমাদের ফলো করুন # আপনার লেখা আমাদের কাছে অমূল্য, লেখা পাঠান এই ঠিকানায়ঃ singhasada4@gmail.com # ঈশানকোণ-এর অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ Google Play Store-এ দেওয়া হচ্ছে # পরবর্তী JAN-FEB 2023 সংখ্যা প্রকাশিত হবে জানুয়ারির ১৫-২০ তারিখের মধ্যে।

দেবাশিস কোনারের কবিতা

কারুকার্য  দেবাশিস কোনার ছোঁয়াতে মুছে যাবে কল্পনার ফানুস সে বিশ্বাস ছিল না কোনোদিন ঘরে ধুপ ধুনো জ্বেলে পুজো যখন মন খারাপ করবার অর্থ কি? এসো আরতির চিতাভস্ম জুড়ে খেলি প্রেমের ঘাত – প্রতিঘাত হারিয়ে যাই ছেলেবেলার গভীর গহনে সাঁতার শিখি অনাবিল আনন্দে! সত্যি যদি বুঝে থাক অকল্যাণ সাধ জেগেছিল অকারণ মলিন মর্মমূলে তাহলে প্লিজ এসো যাপনের বিষ বাষ্প ভুলে কারুকার্যে মাতি! বন্ধন দেবাশিস কোনার স্নায়ুতে খেলা করে অভিযান স্রোত, রক্ত কথা বলে –– বড্ড বেশি কথা তাই আলো থাকে…

Read More

ভারতের বরফকুচির হিলস্টেশন

ভারতের বরফকুচির হিলস্টেশন সদানন্দ সিংহ     হিমাচল প্রদেশের সোলং উপত্যকা হিমাচল প্রদেশের সোলং উপত্যকা বিয়াস কুন্ড এবং সোলং গ্রামের মাঝখানে অবস্থিত এবং মানালি থেকে ১৩ কিলোমিটার দূরে। উপত্যকাটি তুষারময় পাহাড় এবং হিমবাহ দ্বারা আবৃত। সোলং-এ আপনি বছরের বেশির ভাগ সময় প্যারাগ্লাইডিং, কোয়াড বাইক চালানো, রোপওয়ে, ঘোড়ায় চড়া এবং প্যারাশুটিং এর মতো কার্যকলাপ করতেই পারেন। নিকটতম রেলস্টেশন হ’ল যোগিন্দার নগর রেলস্টেশন, যা উপত্যকা থেকে ১৭৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। কুল্লু মানালি বিমানবন্দরটি সোলং উপত্যকার নিকটতম বিমানবন্দর। এটি উপত্যকা থেকে ৬৩…

Read More

রুমা ঢ্যাং অধিকারীর কবিতা

ভ্রমণ রুমা ঢ্যাং অধিকারী চারিদিকে ঘাতকের ফাঁদ পাতা রাস্তা এ কথা ভাবলেই বস্তুত বিয়োগান্তক গল্প নিয়ে আহার করি তিলাঞ্জলি। নিবিড় সংক্রান্তি ভ্রমণ সম্পর্কে যে যার মতো বেছে নিই অভিজ্ঞানসমূহ স্বপ্নের জলরাশি শুষে লিখে রাখি শতকোটি দেবদূত মন ভেদ করে তবু সচল মাংসের দাওয়া নিঃশব্দে সেরে রাখে আচমন হে নির্বাণ, তোমার সাতটা স্বরের ভেতর কুসুমপানা শব্দ বহন করে পৌঁছে দাও মর্মর পাতার অবগাহন সবুজমোড়া নীলগিরির পোশাক ছাড়িয়ে বলে উঠুক তোমার পালিত ধাতু

Read More

বলাই দে’র ছড়া

মেঘের খেলা বলাই দে বর্ষা নাকি শরৎকাল পড়েছি যে ধন্দে, মেঘগুলো সব পেঁজা তুলো ওড়ে শরৎ ছন্দে। যেখানটাতে থমকে ছিল গরমটা কালকে, এগিয়ে নিয়ে যায় যে বয়ে গরমের সেই তালকে। ভাবি বটে তাদের কথা আছে যারা মাঠে ঘাটে, তেজবাহাদুর সূর্য ব্যাটা বিষম দাপট এ তল্লাটে। মাঠ শুকনো,খাল শুকনো, নদীর জলে টান, চাতক ব্যাকুল,উদাস দুপুর, ওষ্ঠাগত প্রাণ। মেঘ উড়ে যায় রাজার বাড়ি, নাই যে ঝরার তাড়া, দগ্ধ দিনে, দগ্ধ রাতে, সবাই দিশেহারা। যাওনা উড়ে বলাই দে সহজ জীবন করো জটিল…

Read More

সুবীর ঘোষের কবিতা

নিজস্ব পিপাসা সুবীর ঘোষ এ পৃথিবীর কাছে আর কতটুকু বেশি চাই বলো; শুধু দুটো শুকনো পাতা যতক্ষণ হাতের আদরে ভেঙে না যাচ্ছে আর শুয়ে যাচ্ছে ধুলোর শয্যায় ততক্ষণ চোখের বুরুশে মাখি, উড়ে যাওয়া বয়সের রঙ। ভাঙা কুঁড়েঘর খুলে মধ্যরাতে কারা নেয় বৃষ্টির মাপ! কখনো কী নদীপথে ডুবে যাওয়া পিপাসাকে নিজস্ব করেছি ? এ পৃথিবীতে কারো যেন চেনা রাস্তা আর কোনোদিন ভুলপথে ঘুরতে না থাকে। প্রজাপতি যেন ভালোবাসা দেয় চিরদিন। এসব কী বেশি চাওয়া ? কঞ্জুসের জমারও অধিক ! সবুজে…

Read More

ভরতপুর পক্ষী অভয়াঅরণ্যে

ভরতপুর পক্ষী অভয়াঅরণ্যে সদানন্দ সিংহ এবার প্রখর উত্তাপের মাঝে মে মাসের বৃন্দাবন সফরের আগেই ভেবেছিলুম ভরতপুর অভয়াঅরণ্যে যাবো। ভরতপুর বাদে রাজস্থানের আজমির, জয়পুর, বিকানীর, জয়সলমের, পুষ্কর, উদয়পুর, মাউন্ট আবু ইত্যাদি জায়গাগুলি অনেক আগেই ঘুরেছি। কিন্তু মুশকিল হয়ে দাঁড়াল এবার আমার ভরতপুর যাবার প্রস্তাবে আমার গিন্নির সরাসরি ‘না’। ফলে আমি আগে থেকে ভরতপুরে হোটেল বুক করা, ট্রেনের টিকিট কিছুই করিনি। শুধু বৃন্দাবনের জন্যে বুক করে রেখেছিলাম। কিন্তু কে আর জানতো, শেষে ভরতপুরেই যে চলে যেতে হবে। ব্যাপারটা একটু গোলমেলে হয়ে…

Read More

বাস্তবের স্বপ্ন ভেনিস

বাস্তবের স্বপ্ন ভেনিস সদানন্দ সিংহ ভেনিস সম্ভবত এই গ্রহের সবচেয়ে সুন্দর শহরগুলির মধ্যে একটি এবং ইউরোপ ট্যুর প্যাকেজে থাকা অনেকগুলি স্থানের মধ্যে অন্যতম। ভেনিস, উত্তর ইতালির ভেনেটো এলাকার রাজধানী, ১১৭টি ছোট দ্বীপের উপর অবস্থিত যা সেতুগুলির দ্বারা সংযুক্ত এবং খালগুলির দ্বারা পৃথক। ভেনিসের স্বপ্নের মতো মহানগরী তার রোমান্টিক পরিবেশ, ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান এবং নির্মল খালের কারণে প্রতি বছর হাজার হাজার অবকাশ যাপনকারীদের বিশেষ করে হানিমুনারদের আকর্ষণ করে। এছাড়াও, এর প্রাণবন্ত এবং আকর্ষণীয় এক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের কারণে ভারতীয়দের কাছে শীর্ষস্থানীয়…

Read More

লক্ষ্মণ বণিকের বৈশ্যবালক

লক্ষ্মণ বণিকের বৈশ্যবালক সদানন্দ সিংহ পৃথিবীতে প্রথম কোথায় কবিতার জন্ম হয়েছিল, সর্বপ্রথম কবিটি কে ছিলেন এর উত্তর আমাদের জানা নেই। তবে পৃথিবীর সমস্ত ভাষায় কবিতা লেখা হয়েছে – এটা স্বীকৃত। সমস্ত জাতিতেই কবিরা আছেন। কোনখানে সংখ্যায় কম, কোনখানে অজস্র। আর বাংলা ভাষার কবিদের সংখ্যা কত তার কোন হিসেব কেউ দিতে পারবেন না। প্রতিদিন নতুন কবি ও কবিতার জন্ম হচ্ছে। স্বভাব কবি ও স্বঘোষিত কবির জন্মও হচ্ছে প্রতিদিন। হয়তো “সকলেই কবি নয়, কেউ কেউ কবি”। কিন্তু সাহিত্য যেহেতু কারুর বাবার…

Read More

অ্যাংগার বা রাগ – সদানন্দ সিংহ

অ্যাংগার বা রাগ সদানন্দ সিংহ রাগ হচ্ছে আমাদেরই এক ইমোশন বা আবেগ যা ফুটে উঠে অন্যের প্রতি বৈরিতার মনোভাব নিয়ে বা নিজের কৃতকর্মের জন্যে নিজেরই ওপর এক অনাস্থা নিয়ে। পৃথিবীতে রাগ নেই এমন মানুষের দেখা পাওয়া খুব দুর্লভ। আর দুঃখ-হাসি-কান্না-রাগ সবই তো আমাদের ইমোশন থেকে উৎপত্তি। একমাত্র মৃত মানুষেরই ইমোশন থাকে না। কিন্তু একজন জীবন্ত মানুষের কি রাগের সত্যিই প্রয়োজন আছে? মানুষটা জীবন্ত বলে তাকে কি রাগ দেখাতেই হবে? সচরাচর আমরা কয়েক ধরনের রাগ দেখি। ক্রনিক রাগ, পরোক্ষ রাগ,…

Read More

সদানন্দ সিংহের কবিতা

ইল্যুশান সদানন্দ সিংহ পিঠে রুকসেক, পায়ে ক্যাম্পাস, এইসব জীবনের এই বকধার্মিক তালগোল ক্রমশ ফিকে হতে হতে বিদ্যুৎপৃষ্ট রাত্রি উৎসবমুখর হিরণ্ময় দিন আর তিলে তিলে সব ধূসর হয়ে আজো বেঁচে থাকে বা বাঁচিয়ে রাখে তারপর আকাশটাই প্রদীপ হয়ে যায় কিংবা ধরো প্রদীপটাই এক আকাশ ইল্যুশান নিয়েই বেঁচে থাকি ধুকধুক চিরকাল

Read More