প্রিয় পাঠক

# এটা JAN-FEB 2024 সংখ্যা # পরবর্তী MARCH-APRIL 2024 সংখ্যা প্রকাশিত হবে মার্চ মাসের ১৫-২০ তারিখের মধ্যে # আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ # ঈশানকোণ নিয়মিত পড়ার জন্য আপনার প্রতি রইল আমাদের একান্ত অনুরোধ # ফেসবুকে আমাদের পেজ লাইক করুন, আমাদের ফলো করুন # আপনার লেখা আমাদের কাছে অমূল্য, লেখা পাঠান এই ঠিকানায়ঃ singhasada4@gmail.com # ঈশানকোণ-এর অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ Google Play Store থেকে ডাউনলোড করুন # পরবর্তী MARCH-APRIL 2024 সংখ্যা প্রকাশিত হবে মার্চ মাসের ১৫-২০ তারিখের মধ্যে।

কাতুপিসির ডাইরি ও ইন্দিরা – বিজয়া দেব

কাতুপিসির ডাইরি ও ইন্দিরা   (ছোটোগল্প) বিজয়া দেব খোলা জানালায় চুপ করে দাঁড়িয়ে রইল ইন্দিরা। রাজন ঘুমোচ্ছে। এখন বিকেল। রোববার বিকেল। গত রোববার এমনি বিকেলে ঋতু ফোন করেছিল — মা, এখানে কত জায়গার ছাত্রী। আমার রুমমেট গোয়ানিজ, একটু ফুটানি আছে, কথা বলে কম, আমার সিনিয়র, তাই কথা তেমন এগোয় না। দেখা যাক, ধীরে ধীরে সবই অভ্যেস হয়ে যাবে। তারপর পুরো হপ্তা কেটে গেল ফোন করেনি ঋতু। মুম্বইতে বিবিএ কোর্স করতে গেছে ঋতু বারো ক্লাস উৎরে যাওয়ার পর। এখনও রপ্ত হয়ে…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on কাতুপিসির ডাইরি ও ইন্দিরা – বিজয়া দেব
থার্ড পার্টি – সদানন্দ সিংহ

থার্ড পার্টি          (ছোটোগল্প) সদানন্দ সিংহ ট্রেনটা সময়মত পৌঁছোয় নি। দু’ঘন্টার মতো বেশি লেগেছে। স্টেশান যশবন্তপুর। প্ল্যাটফর্মের বাইরে এসে লোকেন মোবাইল বের করে উবের-ওলার অ্যাপ খোলে। কাছাকাছি কোনো উবের বা ওলাকে দেখতে পায় না। সামনে তবে অনেক প্রাইভেট কার-ক্যাব দাঁড়িয়ে আছে। গন্তব্যস্থল তার কর্মস্থল, এখান থেকে প্রায় দুঘন্টার জার্ণি। সঙ্গে নববধূ রূপা, আর একটা বড় লাগেজ। দুটো হ্যান্ড ব্যাগেজ দু জনের কাঁধে। লাগেজটা সামলাচ্ছে লোকেন। তাঁদেরকে বেরুতে দেখে বেশ কয়েকজন কার-ক্যাবের দালাল ছেঁকে ধরেছে, কঁহা জানা…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on থার্ড পার্টি – সদানন্দ সিংহ
মানতবৃক্ষ – ডঃ নিতাই ভট্টাচার্য্য

মানতবৃক্ষ       (ছোটোগল্প) ডঃ নিতাই ভট্টাচার্য্য দেখতে দেখতে আমি একটা মানতবৃক্ষ হয়ে উঠলাম। চারটে কেমো নেবার পর  ডাক্তার বললো আপাতত হসপিটালে না এলেও চলবে। অর্থাৎ ঘুরিয়ে শুনিয়ে দিলো এরপর আমার বাঁচা মরা উপরওয়ালার মর্জি। তারপর থেকে প্রায় রোজই বিভিন্ন দেব বা দেবীর মন্ত্রপূত পুষ্প মাদুলি বন্দী হয়ে আমার দুই হাতে নয়তো কোমড়ে বেঁধে দিতে লাগলো আমার স্ত্রী। মাঝে মধ্যে মেয়েও এসেছে প্রসাদী ফুল বা স্নানজল নিয়ে। গলাতে ঝুলিয়ে দিয়ে গেছে বেশ কয়েকটি মাদুলি। সব চেয়ে বড় যে মাদুলি…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on মানতবৃক্ষ – ডঃ নিতাই ভট্টাচার্য্য
বৃষ্টিভেজা কাঠগোলাপ – কামরুল হাসান

বৃষ্টিভেজা কাঠগোলাপ     (ছোটোগল্প) কামরুল হাসান “সন্ধ্যা নামে পা ছোটে মেয়েটির আছে তাড়া চমকে উঠে থমকে দাঁড়ায় হঠাৎ যায় খাড়া। ঝরে পড়া কাঠগোলাপ, কে দেবে তাহার মূল্য হাতে তুলে সযত্নে ওর কাছে যেন পূজো-তুল্য। কাঠগোলাপের কঠিন মায়া কাড়ে মেয়েটির প্রাণ সাদা সাদা পাঁপড়ি কী মিষ্টি মোলায়েম তার ঘ্রাণ।” কাঠগোলাপের গাছটির কাছে আসলেই চঞ্চল মেয়েটির মন যেন আরো চঞ্চল-অস্থির হয়ে উঠে। দৌড়ে কাছে যায়, যেন অন্য কেউ নিতে না পারে। পড়ে থাকা ফুল চোরের মতো লুকায় হাতের মুঠোয়। ডানে-বামে তাকায়।…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on বৃষ্টিভেজা কাঠগোলাপ – কামরুল হাসান
সেকেন মাস্টার – সুদীপ ঘোষাল

সেকেন মাস্টার      (ছোটোগল্প) সুদীপ ঘোষাল রতন যখন প্রাইমারী স্কুলে পড়ত তখন পাকা চুলের মাস্টারকে ভালোবেসে ফেলেছিলো। সাইকেল চালিয়ে কেতুগ্রাম থেকে মাস্টারমশাই যখন আসতেন, মাঝ রাস্তা থেকে সাইকেলে চাপিয়ে রতনকে নিয়ে আসতেন স্কুলে। রতনকে না পেলে রাস্তায় কোনো ছাত্রকে দেখলেও তুলে নিতেন নিজের সাইকেলে। নিজের টিফিন থেকেও খাওয়াতেন ছাত্রদের। পড়া সহজ করে বুঝিয়ে দিতেন। তিনি বলতেন, এই চল্লিশ বছরে বহু ছাত্রদের আমি পড়িয়েছি, তারা মানুষ হয়েছে। তোরাও মানুষ হ। তারপর রতনও বড় হয়েছে। হেডমাস্টারের পরেই সেকেণ্ড মাস্টারের নাম।…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on সেকেন মাস্টার – সুদীপ ঘোষাল
সম্পত্তি – সদানন্দ সিংহ

সম্পত্তি          (ছোটোগল্প) সদানন্দ সিংহ নদীর পারের জমি বেদখল করে করে এখানে একটা বড় বস্তি গড়ে উঠেছে। এই বস্তির পুরুষ লোকেরা কেউ দিনমজদুর, কেউ রিক্সাচালক, কেউ ইট ভেঙে বিক্রি করে, কেউ বাজারে মাছ বিক্রি করে, কেউ শাকসবজি বিক্রি — এইসব বিভিন্ন কৃচ্ছ্বকর্ম করে জীবনধারণ করে। আর মহিলারা বেশির ভাগ গৃহপরিচারিকার কাজ করে। সুখলাল এই বস্তিরই একজন লোক। বৌ নিয়ে সংসার করে। সুখলালের মনে ইদানীং একটা প্রশান্তি এসেছে। কারণ তার হাতে কিছু সম্পদ যেন এসেছে। সেগুলি হচ্ছে…

Read More

চন্দনের গন্ধ – সুদীপ ঘোষাল

চন্দনের গন্ধ     (ছোটোগল্প) সুদীপ ঘোষাল মাষ্টারমশাই দীনেশবাবু সাদাসিধা মনের মানুষ। একটা সাধারণ প্যান্ট জামা পরে কাঁধে ব্যাগ ঝুলিয়ে ট্রেনে তাঁর নিত্য যাওয়া আসা। ট্রেনে যাওয়ার সময় অনেক বন্ধুদের সঙ্গে আলাপ হয়। তারা হাসি মস্করায় ব্যস্ত থাকে। দীনেশবাবু নিজে জানালার এক কোণে বই নিয়ে বসে পড়েন। তিনি নিজেও অনেক বই লিখেছেন। কলকাতার নামীদামী প্রকাশনা থেকে তাঁর লেখা গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু তাতে তার কোনো অহংকার নেই। ছাত্রছাত্রীদের কি করে ভালভাবে প্রকৃত মানুষের মত মানুষ করা যায়, এই নিয়ে তাঁর…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on চন্দনের গন্ধ – সুদীপ ঘোষাল
দুটি ফালতু কথা – ডঃ নিতাই ভট্টাচার্য্য

দুটি ফালতু কথা    (ছোটোগল্প) ডঃ নিতাই ভট্টাচার্য্য গল্প ১ এমন একটা যে কিছু হবে তার আগাম কোনো আভাস ছিলো না। বিকেল বেলায় গ্রামে ফিরে আকাশ থেকে পড়ে বিপিন। বিপিন হাঁসদা। শোনে বানেশ্বরী মাঠে নাচ গান হচ্ছে। আজ নাকি বিশেষ দিন। খুশির দিন। কিসের খুশি, ভেবে পায় না বিপিন। হাঁটা দেয় বানেশ্বরী মাঠের দিকে। মাঠে পৌঁছায় বিপিন । দেখে এলাহি ব্যপার। আনন্দ আর আনন্দ। ছেলে বুড়ো সবাই নাচে। মাদল আর ধামাসের বাজনা ঝড় তুলেছে সবার মনে। অবাক হয়ে দেখে…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on দুটি ফালতু কথা – ডঃ নিতাই ভট্টাচার্য্য
অলৌকিক অন্ধকারে – বিজয়া দেব

অলৌকিক অন্ধকারে        (ছোটোগল্প) বিজয়া দেব ডাক্তার এক্স রে-র ছবিটা পেশেন্টকে দেখিয়ে বললেন, দেখুন আপনার পিঠের ছবি। মেরুদণ্ড বেঁকে গেছে। এবার আসুন হাতে। আপনার ডান হাত বেঁকে গেছে। এবার আসুন পায়ে। ডান পা বেঁকেছে, হাঁটুর অবস্থা খুব খারাপ। এই অবস্থায় আপনাকে নিয়ে যে কী করি! হাঁটু অপারেশন লাগবে। তাহলে চলাফেরাতে থাকতে পারবেন। মিনতি আঁতকে উঠল। বলল — না না ডাক্তারবাবু, আমি অপারেশন করাব না। — করাবেন না? কেন? — বাড়িতে খাওয়াদাওয়া বন্ধ হয়ে যাবে। — সে তো…

Read More

Posted in ছোটোগল্প Comments Off on অলৌকিক অন্ধকারে – বিজয়া দেব
মাছজীবন – সদানন্দ সিংহ

মাছজীবন      (ছোটোগল্প) সদানন্দ সিংহ সবাই বলে এ মন্দির জাগ্রত কালী মন্দির। তাই দূর-দূরান্ত এবং শহর থেকে প্রচুর বিশ্বাসী লোক মন্দিরে পুজো দিতে এখানে আসে। রবিবার এবং ছুটির দিনে লোকসমাগম আরো বেড়ে যায়। আর লোকসমাগম বেশি হলেই দয়াহরি খুশি হয়। বুকে এক আশা তৈরি হয়। দয়াহরি তাই পদ্মফুলের কলি নিয়ে ভক্তদের কাছে যায় আর অনুরোধ করে, মায়ের জন্য একটা পদ্মফুল নিন না। কেউ খুব একটা পাত্তা দেয় না। কেউ কেউ বলে, কোথায় পদ্মফুল? এ তো পদ্মফুলের কলি। দয়াহরি…

Read More